সরকারকে সারাদেশে অক্সিজেন সহায়তা নিশ্চিত করতে হবেঃ জিএম কাদের

প্রকাশিত: ৮:২০ পিএম, জুলাই ৫, ২০২০
  • শেয়ার করুন

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের বলেছেন, করোনা রোগীদের মৃত্যু হয় শ্বাসকষ্টে। তাই করোনা আক্রান্ত রোগীদের শ্বাসকষ্ট হলে প্রথমে স্বাভাবিক অক্সিজেন, আন্ডার প্রেসার অক্সিজেন এবং প্রয়োজন হলে ভেন্টিলেটরের মাধ্যমে লাইফ সাপোর্ট দিতে হয়।

রবিবার (৫ জুলাই) রাজধানীর বনানীতে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এক প্রস্তুতি সভা শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

জিএম কাদের বলেন, ঢাকার কিছু হাসপাতাল ছাড়া দেশের বেশির ভাগ জায়গায় এ সহায়তা নেই। তাই যত দ্রুততার সাথে যতটুকু সম্ভব সরকারকে সারাদেশে অক্সিজেন সহায়তা নিশ্চিত করতে হবে। অক্সিজেন ও ভেন্টিলেশনের সহায়তা নিশ্চিত করা গেলে দেশে করোনায় মৃত্যুর হার অনেকটাই কমে যাবে। করোনায় মৃত্যুর হার কমে গেলে সাধারণ মানুষের ভয়ভীতি দূর হবে। এতে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ফিরে আসবে, অর্থনৈতিক চাঞ্চল্য বাড়বে। মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব কাজ-কর্ম করতে পারবে। দেশের উন্নতি, অগ্রগতি ও স্বাবলম্বিতা নিশ্চিত হবে।

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, সংক্রমণ কমাতে হলে শনাক্ত করার বিষয়ে আরও জোর দিতে হবে। জেলা পর্যায়ে করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে। এতে মানুষ নিজেদের প্রচেষ্টায় আইসোলেশনে যেতে পারবে। সংক্রমণ আরও কমে যাবে।

আগামী ১৪ জুলাই এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি চূড়ান্ত করা হয়েছে। ১৪ জুলাই সকাল সাড়ে ৮টায় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এবং মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে নিয়ে বিমানযোগে রংপুরে যাবেন। সকাল সাড়ে ১০টায় রংপুরে পল্লীবন্ধুর সমাধিস্থলে পুস্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলে যোগ দেবেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান।

বিকেল সাড়ে ৪টায় জাতীয় পার্টি বনানী অফিসে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলে অংশ নেবেন জিএম কাদের। ওইদিন সকাল থেকে বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে জাতীয় পার্টি কেন্দ্রীয় কার্যালয় কাকরাইলে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। সারাদেশে সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হবে। সকালে সারাদেশে জাতীয় পার্টি কার্যালয়ে দলীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান মুজিবুল হক চুন্নু, প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী, অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, ক্বারী হাবিবুল্লাহ বেলালী ও দফতর সম্পাদক সুলতান মাহমুদ।