ত্যাগী কর্মীদের কোণঠাসা করলে আওয়ামী লীগ বাঁচবে না: কাদের

প্রকাশিত: ৭:৩৭ পিএম, ডিসেম্বর ২, ২০১৯
  • শেয়ার করুন

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেছেন, ‘অনেক ত্যাগী কমিটিতে জায়গা পায়নি, তাদের জায়গা করে দিতে হবে। ত্যাগী কর্মীদের কোণঠাসা করলে আওয়ামী লীগ বাঁচবে না।’

দীর্ঘ ২৭ বছর পরে বদল হল পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব। নয়া নেতৃত্বে উচ্ছ্বসিত পটুয়াখালীর আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ।

সোমবার (২ ডিসেম্বর) পটুয়াখালী শিশু আলাউদ্দিন শিশু পার্কে আয়োজিত সম্মেলনে এ কমিটির ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ওবায়দুল কাদের বলেন, বসন্তের কোকিল দলে টেনে ত্যাগী নেতাকর্মীদের কোণঠাসা করে দল ভারি করার দরকার নেই। বিলবোর্ডে ছবি ও স্লোগান দিয়ে, পোস্টার লাগিয়ে নেতা হওয়া যায় না। কর্মীরা ঠিক আছে, সব গোলমালের উৎস হচ্ছে এই মঞ্চ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নেতারা ঘরের মধ্যে ঘর করে মশারির মধ্যে মশারি, আত্মীয়করণ করে চৌদ্দপুরুষকে নিয়ে পকেট কমিটি করে!

সম্মেলনে পটুয়াখালী-২ বাউফল আসনের সংসদ সদস্য আ স ম ফিরোজ, পটুয়াখালী-৪ (কলাপাড়া-দশমিনা) আসনের সংসদ সদস্য মো. মহিব্বুর রহমান, পটুযাখালীর সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপিকা কাজী কানিজ সুলতানা হেলেন, পটুয়াখালী-৩ (গলাচিপা-দশমিনা) আসনের সংসদ সদস্য এসএম শাহজাদা, পটুয়াখালী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান মোহন মিয়াসহ আওয়ামী লীগ ও অংগসংগঠনের সব স্তরের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক কাজী আলমগীর হোসেনকে সভাপতি, পটুয়াখালী সরকারী কলেজের সাবেক ভিপি আব্দুল মান্নানকে সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম সরোয়ার ও বাউফল পৌরসভার মেয়র জিয়াউল হক জুয়েলকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ঘোষণা দেন কেন্দ্রীয় নেতারা।



সর্বশেষ খবর