রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ ঢাকায় এসেছিলেন মোট দুবার

প্রকাশিত: ১১:৩৪ এএম, সেপ্টেম্বর ৯, ২০২২
  • শেয়ার করুন

ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ দু’দফা ঢাকা সফরে এসেছিলেন। স্বাধীনতার আগে ১৯৬১ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি প্রথম দফায় ও স্বাধীন বাংলাদেশে ১৯৮৩ সালের ১৪-১৭ নভেম্বর দ্বিতীয় দফায় তিনি বাংলাদেশ সফর করেন।

রানি এলিজাবেথ দুই বার ঢাকা সফরকালে এ দেশের মানুষের প্রতি প্রকাশ করেছেন গভীর ভালোবাসা। বাংলাদেশের কোমলমতি সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের শিক্ষার জন্য তিনি সচেষ্ট ভূমিকা রেখেছেন।

১৯৬১ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তান আমলে ঢাকায় এসেছিলেন রানি এলিজাবেথ। সে সময় স্বামী প্রিন্স ফিলিপও তার সঙ্গে ঢাকায় আসেন। তারা থেকেছিলেন রমনা পার্কের রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন সুগন্ধায়। এখন সেই ভবনটি ফরেন সার্ভিস একাডেমি হিসেবে পরিচিত।

রানি এলিজাবেথ সে সময় বুড়িগঙ্গা নদীতে স্টিমারে চড়ে নৌ বিহার করেন। তিনি যখন নৌ বিহারে ছিলেন, তখন বুড়িগঙ্গার দুই পাড়ে হাজার হাজার মানুষ হাত নেড়ে রানিকে স্বাগত জানান। তিনি সেবার আদমজী জুট মিলও পরিদর্শন করেন। কীভাবে জুট মিলে চট উৎপাদন হয়, সেটা দেখার আগ্রহ ছিল তার।

১৯৮৩ সালের ১৪-১৭ নভেম্বর স্বাধীন বাংলাদেশ সফর করেন রানি এলিজাবেথ। সে সময় গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভার প্রত্যন্ত অঞ্চল বৈরাগীরচালা আদর্শ গ্রাম ও প্রাথমিক স্কুল পরিদর্শন করেন। তিনি গ্রামে গিয়ে গ্রামের সংস্কৃতি দেখতে চেয়েছিলেন। সেখানে কীভাবে মুড়ি ভাজা হয়, সেটাও দেখেন তিনি।

রানি এলিজাবেথের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক অত্যন্ত গভীর। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন রানি এলিজাবেথ। তিনি বাংলাদেশের সমৃদ্ধি ও কল্যাণ কামনা করেন।

প্রতি বছর রানির জন্মদিনে বাংলাদেশের সরকার প্রধানরা তাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে এসেছেন। এদিকে রানির মৃত্যুতেও বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

চলতি বছর ৪ জুন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের সিংহাসন আরোহণের ৭০ বছর পূর্ণ হয়। এ উপলক্ষে বিশ্বজুড়ে নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন ছিল। এখন রানির মৃত্যুর পরেও বিশ্ব জুড়ে শোক পালিত হচ্ছে।

উল্লেখ্য, স্কটল্যান্ডের বালমোরাল ক্যাসেলে বৃহস্পতিবার (০৮ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সময় বিকেল ৫টার দিকে মারা যান রানি এলিজাবেথ। স্কটল্যান্ড থেকে তার মরদেহ শুক্রবার লন্ডনে নেওয়া হবে।



সর্বশেষ খবর