নবায়নযোগ্য জ্বালানিভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনে যৌথ কোম্পানি গঠন করবে বাংলাদেশ-চীন

প্রকাশিত: ৭:৫৩ এএম, জুলাই ১৫, ২০২০
  • শেয়ার করুন

দেশের বিভিন্ন স্থানে মোট ৫০০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন নবায়নযোগ্য জ্বালানিভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বাস্তবায়নের জন্য বিসিপিসিএল রিনিউয়েবল নামে একটি জয়েন্ট ভেঞ্চার কোম্পানি গঠন করা হবে। এজন্য নর্থ ওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি লিমিটেড (এনডব্লিউপিজিসিএল) এবং চায়না ন্যাশনাল মেশিনারি ইমপোর্ট অ্যান্ড এক্সপোর্ট করপোরেশনের (সিএমসি) মধ্যে জয়েন্ট ভেঞ্চার এগ্রিমেন্ট (জেভিএ) সই হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) এলডব্লিউপিজিসিএল-এর বোর্ড সভাকক্ষে এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

অনুষ্ঠানে বলা হয়, নবায়নযোগ্য জ্বালানি নীতিমালা বাস্তবায়নকল্পে বিদ্যুৎ উৎপাদনে অভ্যন্তরীণ ও আমদানি করা কয়লা, তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি), পরমাণু শক্তি ইত্যাদির সঙ্গে সঙ্গে নবায়নযোগ্য জ্বালানি ব্যবহারের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে ৫০০ মেগাওয়াট পর্যন্ত নবায়নযোগ্য জ্বালানিভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বাস্তবায়নের জন্য নওপাজেকো এবং চীনা কোম্পানি সিএমসির যৌথ উদ্যোগে বাংলাদেশ-চায়না পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড (রিনিউয়েবেল) নামে যৌথ কোম্পানি গঠনের উদ্যোগ নেওয়া হয়।

এ প্রেক্ষিতে গতবছরের ২৭ আগস্ট দুই কোম্পানির মধ্যে একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় এবং চলতি বছরের ৮ জুন কোম্পানি গঠনের প্রস্তাব মন্ত্রিসভা বৈঠকে অনুমোদিত হয়। এই যৌথ কোম্পানি গঠনের ক্ষেত্রে নওপাজেকো এর শেয়ার ৫০ ভাগ এবং সিএমসি এর শেয়ার ৫০ ভাগ।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, পরিবেশবান্ধব নবায়নযোগ্য জ্বালানির ব্যবহার বাড়াতে প্রণোদনা অব্যাহত রাখা হবে। নবায়নযোগ্য জ্বালানিভিত্তিক ডিস্ট্রিবিউটেড জেনারেশনকে উৎসাহিতকরণের লক্ষ্যে নেট মিটারিং ব্যবস্থা প্রবর্তন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, অ-কৃষি জমির অপ্রতুলতার জন্য সৌর শক্তি ব্যবহার করে বড় আকারের বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র স্থাপন করা যাচ্ছে না। ছাদ সৌর বিদ্যুৎ এবং ভাসমান সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। বর্জ্য থেকে, বিদ্যুৎ ও বাতাস থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন নিয়েও গৃহীত উদ্যোগগুলো এগিয়ে চলছে।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। বিদ্যুৎ সচিব ড. সুলতান আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই জয়েন্ট ভেঞ্চার চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে বিপিডিবি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মো. বেলায়েত হোসেন, এনডব্লিওপিজিসিএল এর চীফ এক্সিকিউটিভ অফিসার প্রকৌশলী এ. এম. খোরশেদুল আলম এবং সিএমসি চেয়ারম্যান রুয়ান গুয়াং বক্তব্য রাখেন।



সর্বশেষ খবর