করোনা ল্যাব পরিদর্শন করলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও এমপি ফজলে হোসেন বাদশা

প্রকাশিত: ৭:১৫ পিএম, মে ১৯, ২০২০
  • শেয়ার করুন

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ল্যাব পরিদর্শন করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ও রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের নমুনা শনাক্তে রাজশাহীতে চালু হলো দ্বিতীয় ল্যাব। মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের বহির্বিভাগে এটি চালু হয়।

প্রথম দিনেই ল্যাবে ৪০টি নমুনা পরীক্ষার জন্য নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন রামেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস। তিনি জানান, তাদের কাছে থাকা একটি পলিমার চেইন রিঅ্যাকশন (পিসিআর) মেশিন দিয়ে ল্যাবটি চালু করা হলো।

বেশ কয়েকদিন আগে ল্যাবটি প্রস্তুত করা হলেও একটু জটিলতার কারণে চালু করা যাচ্ছিল না। অবশেষে ল্যাবটি চালু করা সম্ভব হয়েছে। এখন প্রতিদিন সেখানে করোনার নমুনা পরীক্ষা হবে।

তিনি জানান, রামেক হাসপাতালের নতুন এই ল্যাবেও একসঙ্গে ৯৪টি নমুনা পরীক্ষা করা সম্ভব। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে দুই শিফটে ১৮৮টি নমুনা পরীক্ষা করার পরিকল্পনা
তাদের রয়েছে।

এর আগে ১ এপ্রিল রামেকের ভাইরোলজি বিভাগের ল্যাবে প্রথম করোনা ল্যাব চালু হয়। এরপর প্রতিদিন সেখানে দুই শিফটে ১৮৮টি নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে।

পরে সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, সন্দেহজনক করোনা রোগীদের যত বেশি পরীক্ষা করা যাবে পরিস্থিতি মোকাবিলা করা তত বেশি সহজ হবে। তাই আরেকটি ল্যাব চালু করা হলো।

পরিস্থিতি মোকাবিলায় সবার প্রচেষ্টা থাকা দরকার। আমরা আমাদের চেষ্টাটা করে যাচ্ছি। এখন সাধারণ মানুষকেও ঘরে থেকে আমাদের সহযোগিতা করতে হবে।

এ বিষয়ে রাজশাহী সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাজশাহী শহরকে নিরাপদ রাখার জন্য আমরা শুরু থেকেই চেষ্টা করে যাচ্ছি। তাই বেশি বেশি নমুনা পরীক্ষার ব্যাপারে আমরা জোর দেই।

রামেক হাসপাতালে দ্বিতীয় ল্যাবটি চালু হওয়ায় আরও বেশি নমুনা পরীক্ষা করা সম্ভব হবে। এতে কেউ আক্রান্ত থাকলে শনাক্ত হবে। তাকে আলাদা করে ফেলা যাবে। এতে করোনা মোকাবিলা সহজ হবে।